Print Paper - news69bd.com - Publish Date : 12 February 2019

বাংলাদেশের পুরুষ ফুটবলে প্রথম নারী কোচ

বাংলাদেশের পুরুষ ফুটবলে প্রথম নারী কোচ

স্পোর্টস ডেস্ক, ১২ ফেব্রুয়ারি : দেশের ফুটবল ইতিহাসে যেটা কখনও হয়নি সেটাই হলো এবার। পুরুষ ফুটবলের কোন দলের প্রধান কোচের দায়িত্বে একজন নারী। ফুটবল-অ্যাথলেট পাড়ার পরিচিত মুখ মিরোনা আক্তার। দেশের জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক খেলোয়াড়। তিনিই এখন একটি ক্লাবের প্রধান কোচ!

কোচিং শর্ত পূরণ করেই কাগজে কলমে ঢাকা সিটি এফসির প্রধান কোচের দায়িত্ব পেয়েছে সাবেক জাতীয় দলের এই মিডফিল্ডার। ভারতের একটি রাজ্যের কোচিংয়ের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়ে চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে কোচ হিসেবে অভিষেক করলেন বাগেরহাটের এই ফুটবলার। চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে কোচ হতে হলে `বি‘ লাইসেন্সের বাধ্যবাধকতা ছিটকে দিয়েছে কোচ নোমান নান্নুকে। নান্নুর ছিল সি লাইসেন্স। সেই সুবাদে ঢাকা সিটির প্রধান কোচের দায়িত্বে আবর্তন মিরোনার।

এখানেই থেমে থাকতে চান না তিনি। এ বছরই সম্পন্ন করতে চান ‘এ’ লাইসেন্সও। ফুটলব-অ্যাথলেটের পর এই নতুন জীবন নিয়ে বেশ খুশি মিরোনা, ‘আসলে এটা আমার জন্যে অনেক বড় পাওয়া। নেভিতে আমি চাকরি করি। ওখানে আমি দীর্ঘদিন খেলেছি। আমি অনেক রোমাঞ্চিত।’

বাংলাদেশের প্রথম কোনো পুরুষ দলের কোচ একজন নারী। এই ইতিহাসে সাক্ষী হতে পেরে মিরোনা খুবই খুশি। জাতীয় দলের নিয়মিত ফুটবলার ছিলেন মিরোনা। অ্যাথলেট হিসেবেও নিয়মিত ছিলেন তিনি। ২০০৯ সালে জাতীয় ফুটবল দলে অভিষেক হয়েছিলো তার। ২০১৬ সালে জাতীয় ফুটবল দল ছেড়ে এবং অ্যাথলেট হিসেবে খেলেছেন নৌবাহিনী ও বিজেএমসির হয়ে। সব মিলিয়ে তার অর্জনে স্বর্ণ আছে ১৩টি।

এবার নতুন ক্যারিয়ারে কেমন করেন মিরোনা সেটাই দেখার অপেক্ষায় তার ভক্তরা। যদিও প্রথম ম্যাচে হারের স্বাদ পেতে হয়েছে তাকে। তার দল ঢাকা সিটি ১-০ গোল ব্যবধানে হেরেছে ফরাশগঞ্জের কাছে।