Print Paper - news69bd.com - Publish Date : 9 May 2018

বৃহস্পতিবারের মধ্যে প্রজ্ঞাপন না হলে রোববার থেকে ফের আন্দোলন

বৃহস্পতিবারের মধ্যে প্রজ্ঞাপন না হলে রোববার থেকে ফের আন্দোলন

ঢাকা, ৯ মে : আগামীকাল বৃহস্পতিবারের মধ্যে কোটা বাতিলের প্রজ্ঞাপন জারি না হলে সব বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে ফের আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়েছে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ।

আজ বুধবার বেলা ১২টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি মোড়ে রাজু স্মারক ভাস্কর্যের সামনে প্রজ্ঞাপন জারির দাবিতে আয়োজিত মানবববন্ধনে তারা এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

আন্দোলনকারীরা বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সংসদে যা বলেছেন তা যদি আগামীকাল বৃহস্পতিবারের মধ্যে প্রজ্ঞাপন হিসেবে জারি না হয় তাহলে ছাত্ররা আবার রাজপথে নামতে বাধ্য হবে। আগামী রোববার থেকে সারা দেশে দাবানল জ্বলবে। আপনারা ছাত্রদেরকে রাজপথে নামতে বাধ্য করবেন না।

এসময় সংগঠনটির আহ্বায়ক হাসান আল মামুন, যুগ্ম-আহ্বায়ক নুরুল্লাহ নূর, ফারুক আহমেদ, রাশেদ খানসহ শতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক রাশেদ খান বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য গেজেট আকারে প্রকাশ করা হোক। আমরা পড়ার টেবিলে ফিরে যেতে চাই। আমরা কোটা সংস্কারের জন্য ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে আন্দোলন চালাচ্ছি। কিন্তু কিছু মিডিয়া আমাদের আন্দোলনকে বিতর্কিত করছে।

সংবাদ সম্মেলনে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা বলেন, হয়রানির জন্য অজ্ঞাতনামা পাঁচটি মামলা হয়েছে। যারা প্রকৃত অপরাধী তাদের খুঁজে বের করে এসব মামলা হতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের অব্যাহতি দেয়া হোক। এখন পর্যন্ত কোটা বাতিল নিয়ে তারা কোনো লিখিত নির্দেশনা পাননি। এমনকি এ বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিবের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠনের যে কথা ছিল তা-ও হয়নি। কোটা বাতিলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া ঘোষণা এ মাসের মধ্যে গেজেট আকারে প্রকাশ করতে হবে। সম্প্রতি তৃতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থীকে ডিবি পুলিশ তুলে নেয়ার হুমকি দিয়েছে। এ ধরনের হুমকি দেয়া হলে ছাত্রসমাজ বসে থাকবে না।

সরকারি চাকরিতে বিদ্যমান কোটা সংস্কারে দাবিতে বেশ কিছুদিন সারা দেশে আন্দোলন করে আসছিলেন শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রার্থীরা। এ ঘটনায় পুলিশ অনেককে গ্রেপ্তার করেছে। অনেকে আহত হয়েছেন।

১১ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কোটা প্রথা তুলে দেয়া হবে বলে সংসদে ঘোষণা দেন। এরপরের দিন তারা আন্দোলন তুলে নেন।