adimage

২১ Jul ২০১৯
বিকাল ১০:৫০, রবিবার

গভীর রাতে রাস্তায় বাকৃবির ছাত্রীরা

আপডেট  02:29 AM, ফেব্রুয়ারী ১২ ২০১৯   Posted in : শিক্ষাঙ্গন    

গভীররাতেরাস্তায়বাকৃবিরছাত্রীরা

ঢাকা, ১২ ফেব্রুয়ারি : বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) ছাত্রীদের আবাসিক বেগম রোকেয়া হলে সিট সংকট নিরসনের দাবিতে রাস্তা অবরোধ করে রেখেছেন ওই হলের দ্বিতীয় ও তৃতীয় বর্ষের ছাত্রীরা।

সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা থেকে হলের সামনে প্রায় শতাধিক ছাত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন করছেন।

প্রতিবেদন লেখা (মঙ্গলবার রাত সোয়া ১২টা) পর্যন্ত ছাত্রীরা হলের সামনে রাস্তা অবরোধ করে আন্দোলন করছেন।

আন্দোলনকারী ছাত্রীদের অভিযোগ, গত বছরে হলে সিট সংকট দেখা দিলে মার্চে এবং সেপ্টেম্বরে হলের কাজ শুরু করার জন্য আমরা একাধিকবার আন্দোলন করি।

এতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন গত বছরের ডিসেম্বরে ভবনের চতুর্থ ও পঞ্চম তলা কাজ শুরু করার আশ্বাস দেয়। কিন্তু এ বছরেও কাজ শুরু করেনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ জিয়াউল হক বলেন, নিয়মতান্ত্রিক জটিলতার কারণে বেগম রোকেয়া হলের একটি ব্লকের চতুর্থ ও পঞ্চম তলার কাজ স্থগিত আছে।

তবে খুব শীঘ্রই হলের কাজ শুরু করা হবে বলে আশা করছি। হলের কাজ শেষ হলেই শিক্ষার্থীদের সিট সমস্যার সমাধান হবে।

আন্দোলনের এক পর্যায়ে হলে ভবনের কাজ শুরু করার দাবি জানিয়ে স্লোগান দিতে থাকেন ছাত্রীরা।

এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র বিষয়ক উপদেষ্টা, সহযোগী ছাত্র বিষয়ক উপদেষ্টা, ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর, সহকারি প্রক্টরবৃন্দ, হলের প্রভোস্টসহ প্রশাসনের শিক্ষকবৃন্দ সেখানে উপস্থিত হয়ে সমস্যা সমাধানে ছাত্রীদের আশ্বাস দেন।

এতে কাজ শুরুর বিষয়ে লিখিত চান ছাত্রীরা। কিন্তু কাজ শুরুর বিষয়ে শিক্ষকরা লিখিত দিতে অপরাগতা জানালে আন্দোলন চালিয়ে যান ছাত্রীরা।

জানা গেছে, ২০১৬ সালের শেষের দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম রোকেয়া হলের কাজ শেষ না হলেও ছাত্রী উঠানো শুরু হয়। তবে দুই বছর ছাত্রী ওঠানো হলেও ২০১৯ সালেও শেষ হয়নি ভবনের চতুর্থ ও পঞ্চম তলা তৈরির কাজ।

এতে সিট সংকটে পড়েছে ওই হলের প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীরা। হলের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রীরা এখনও গণরুমে (হলের ডাইনিং রুম) রয়েছেন যেখানে তৃতীয় বর্ষের ছাত্রীরা এক বেডে দুই জন করে থাকছেন। -যুগান্তর

সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul