adimage

২২ Jul ২০১৯
বিকাল ১০:৪৭, সোমবার

নাটোরে মা ও প্রতিবন্ধি শিশুসন্তান খুন

আপডেট  04:42 AM, মে ১৫ ২০১৯   Posted in : রাজশাহী    

নাটোরেমাওপ্রতিবন্ধিশিশুসন্তানখুন

নাটোর, ১৫ মে : নাটোরের নলডাঙ্গায় দু’বছরের প্রতিবন্ধিশিশু সন্তান আব্দুল্লাহ ও তার মা শারমিন বেগমকে (২৫) খুন করেছে দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার উত্তর বাঁশিরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। দুর্বৃত্তরা রাতের কোনো এক সময়ে বাড়িতে ঢুকে মা ও ছেলেকে খুন করে। খবর পেয়ে পুলিশ বুধবার সকালে ঘটনাস্থল থেকে লাশ দু’টি উদ্ধার করে নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

নিহত শারমিন একই উপজেলার হলুদঘর গ্রামের উমর আলীর মেয়ে ও উত্তর বাঁশিলা গ্রামের মাহমুদুল হক মুন্নার স্ত্রী। মুন্না ঢাকায় গার্মেন্টস কারখানায় চাকরি করেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্র জানায়, ঢাকায় গার্মেন্টস কারখানায় কর্মরত মাহমুদুল হাসান মুন্নার স্ত্রী শারমিন বেগম তার প্রতিবন্ধি ছেলে আব্দুল্লাহকে নিয়ে উত্তর বাঁশিরা গ্রামের শ্বশুরবাড়িতে থাকতেন। মঙ্গলবার রাতে শিশুসন্তান আব্দুল্লাহকে নিয়ে ঘুমাতে যায়। রাতের কোনো এক সময় দুর্বৃত্তরা ওই বাড়িতে ঢুকে ৬টি ঘরের ৫টিতে বাইরে থেকে শিকল উঠিয়ে আটকে দেয়। এরপর তারা শারমিন ও তার শিশুসন্তানকে হত্যা করে।

দুর্বৃত্তরা শিশু আব্দুল্লাহকে হত্যার পর পাশের ডোবায় ফেলে চলে যায়। বাড়ির অন্যরা সেহেরি খেতে উঠে বাইরে থেকে ঘরের দরজার শিকল দেওয়া দেখে চিৎকার করলে প্রতিবেশীরা এসে তাদের দরজা খুলে দেয়। এ সময় নিজ ঘরের মধ্যে শারমিনের গলায় ওড়না পেঁচানো লাশ পড়ে থাকতে দেখেন তারা। এ সময় শিশু আব্দুল্লাহকে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি করতে থাকেন। এক পর্যায়ে বাড়ির পাশের ডোবায় আব্দুল্লাহর লাশ পান তারা।

নাটোর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল হাসনাত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

নলডাঙ্গা থানার ওসি শফিকুল ইসলাম জানান, মা ও ছেলেকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে বলে প্রথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। নিহতের পরিবারসহ প্রতিবেশীদের জ্ঞিাসাবাদ করা হচ্ছে। -সমকাল


সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul