adimage

১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
সকাল ১১:২০, রবিবার

খালেদা জিয়াকে ফিজিওথেরাপি দেওয়া হচ্ছে

আপডেট  05:28 PM, অক্টোবর ০৯ ২০১৮   Posted in : রাজনীতি    

খালেদাজিয়াকেফিজিওথেরাপিদেওয়াহচ্ছে

ঢাকা, ৯ অক্টোবর : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে গেঁটেবাতজনিত সমস্যার জন্য ফিজিওথেরাপি দেওয়া শুরু হয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিএসএমএমইউর পরিচালক (হাসপাতাল) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহ আল হারুন এ প্রতিবেদককে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, বিশেষজ্ঞ একদল ফিজিওথেরাপিস্টের তত্ত্বাবধানে বিকেলে খালেদা জিয়াকে ফিজিওথেরাপি দেওয়া হয়েছে।

তবে চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে খালেদা জিয়াকে কতোদিন থাকতে হবে, সে সম্পর্কে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারছে না কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার দুপুরে খালেদা জিয়ার সর্বশেষ শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহ আল হারুণ বলেন, খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা পৃথকভাবে তার সঙ্গে দেখা করেছেন এবং স্বাস্থ্য পরীক্ষাও করেছেন।ইতিমধ্যে তার শারীরিক পরিস্থিতির সামগ্রিক ইতিহাস সংগ্রহ করেছেন। তবে পূর্ণাঙ্গ মেডিকেল বোর্ড এখনও তাকে দেখার সুযোগ পায়নি। বুধবার বিকেলে পূর্ণাঙ্গ মেডিকেল বোর্ড তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে পারে।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের প্রধান বিএসএমএমইউর ইন্টারন্যাল মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ডা. এম এ জলিল চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, খালেদা জিয়া ৩০ বছর ধরে রিউমাটো আর্থ্রাইটিসে ভুগছেন। এই রোগ নিয়ন্ত্রণে না থাকায় বিভিন্ন ধরনের জটিলতার সৃষ্টি হয়েছে। তার দুই হাঁটু আগে থেকে প্রতিস্থাপন করা। সেখানে কিছুদিন আগে ফুলে গিয়েছিল। ওষুধ প্রয়োগ করে তা ঠিক করা হয়েছে।

এর আগে গত সোমবার মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা বলেছিলেন, খালেদা জিয়া গেঁটেবাতজনিত সমস্যায় ভুগছেন। তার ডায়াবেটিসসহ বেশকিছু রোগ অনিয়ন্ত্রিত অবস্থায় আছে। এসব রোগ নিয়ন্ত্রণে আনার পর মূল চিকিৎসা শুরু হবে। এ অবস্থায় বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে কতোদিন খালেদা জিয়ার চিকিৎসা চলবে, তা নির্দিষ্ট করে এখনই বলতে পারছে না মেডিকেল বোর্ড।

দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে কারাগারে বন্দি থাকা খালেদা জিয়াকে ইউনাইটেড বা বিশেষায়িত কোনো হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়ার নির্দেশনা চেয়ে গত ৯ সেপ্টেম্বর হাইকোটে রিট করা হয়। শুনানি নিয়ে গত ৪ অক্টোবর হাইকোর্ট খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়ার এবং তার চিকিৎসায় পাঁচ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড পুনর্গঠনের নির্দেশ দেন।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ডাদেশ দেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫। এর পর থেকে তিনি নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন। কারাগারে যাওয়ার পরপরই তার চিকিৎসা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়। তাকে গুরুতর অসুস্থ দাবি করে কোনো বেসরকারি বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়ার দাবি তোলে বিএনপি। ওই সময় খালেদা জিয়ার দাবির পরিপ্রেক্ষিতে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের কারাগারে গিয়ে স্বাস্থ্য পরীক্ষার অনুমতি দেয় কারা কর্তৃপক্ষ। তারাও বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসার পরামর্শ দেন। তবে কারা কর্তৃপক্ষ তাকে বিএসএমএমইউ বা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা করানোর প্রস্তাব দিলেও তাতে রাজি হননি তিনি। -সমকাল


সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul