adimage

২২ অগাস্ট ২০১৯
বিকাল ০৭:৩০, বৃহস্পতিবার

রাজশাহীতে বিএনপির প্রার্থী বুলবুল, বরিশালে সরোয়ার

আপডেট  02:36 PM, Jun ২৪ ২০১৮   Posted in : রাজনীতি    

রাজশাহীতেবিএনপিরপ্রার্থীবুলবুল,বরিশালেসরোয়ার

ঢাকা, ২৪ জুন : আসন্ন রাজশাহী, বরিশাল ও সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দুই সিটির প্রার্থী ঘোষণা করেছে বিএনপি। এর মধ্যে রাজশাহীতে বর্তমান মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, আর বরিশালে দলের সাবেক মেয়র মজিবর রহমান সরোয়ারকে প্রার্থী করা হয়েছে। সোমবার সিলেট সিটি করপোরেশনে দলীয় প্রার্থী ঘোষণা করা হবে।

বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয় গুলশানে রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, রাজশাহী সিটি করপোরেশেনে তাদের আগের প্রার্থী এবং বর্তমান মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকে প্রার্থী রাখা হয়েছে। আর বরিশালের ক্ষেত্রে প্রার্থী বদল করা হয়েছে। দলের যুগ্ম মহাসচিব এবং বরিশালের সাবেক মেয়র মজিবুর রহমান সরোয়ারকে প্রার্থী করা হয়েছে। আর সোমবার সিলেটের মেয়র প্রার্থীর নাম ঘোষণা করবেন তারা।

সিলেটে জোট শরিক জামায়াতে ইসলামীকে ছাড় দেওয়ার গুঞ্জন থাকলেও সাংবাদিকদের প্রশ্নে তা উড়িয়ে দেন ফখরুল।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার বিএনপির মনোনয়ন বোর্ড তিন সিটিতে প্রার্থী হতে ইচ্ছুক বুলবুল, সরোয়ারসহ ১৭ জনের সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন।

বরিশালে এবারও প্রার্থী হতে সাক্ষাৎকার দেন বর্তমান মেয়র আহসান হাবীব কামালও। ২০১৩ সালে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের শওকত হোসেন হিরণকে হারিয়ে মেয়র নির্বাচিত হন তিনি।

তাকে বদলে যাকে বিএনপি প্রার্থী করেছে, সেই সরোয়ার আগে বরিশালের মেয়র ছিলেন। তিনি দলের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব এবং বরিশাল মহানগর বিএনপির সভাপতির দায়িত্বেও রয়েছেন।

বরিশালে আওয়ামী লীগ প্রার্থী করেছে সংসদ সদস্য আবুল হাসানাত আবদুল্লাহর ছেলে সাদেক আবদুল্লাহকে।

রাজশাহীতে এবারও নৌকা প্রতীকে মেয়র হতে লড়বেন এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন, যিনি একবার মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর ২০১৩ সালের নির্বাচনে বুলবুলের কাছে হেরেছিলেন।

সিলেটে বিএনপি এখনও প্রার্থী ঠিক না করলেও আওয়ামী লীগ গতবার হেরে যাওয়া বদরউদ্দিন আহমদ কামরানকেই প্রার্থী করেছে বিএনপি। তিনিও একবার মেয়রের দায়িত্ব পালনের পর গতবার আরিফুল হকের কাছে হেরেছিলেন।

রাজশাহী, সিলেট ও বরিশাল সিটি নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ২৮ জুন। প্রার্থিতা প্রত্যাহার করা যাবে ৯ জুলাই পর্যন্ত। এরপর ৩০ জুলাই ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।


সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul