adimage

২৩ Jul ২০১৯
সকাল ০৮:৩২, মঙ্গলবার

চাঁদা না দেয়ায় দক্ষিণ আফ্রিকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে বাংলাদেশী নিহত

আপডেট  02:07 AM, এপ্রিল ২১ ২০১৯   Posted in : প্রবাস বাংলা    

চাঁদানাদেয়ায়দক্ষিণআফ্রিকায়সন্ত্রাসীদেরগুলিতেবাংলাদেশীনিহত

শরীয়তপুর, ২১ এপ্রিল : দক্ষিণ আফ্রিকার কেপটাউন শহরে স্থানীয় কালো সন্ত্রাসীদের গুলিতে পারভেজ সরদার (২৯) নামে এক প্রবাসী বাংলাদেশী নিহত হয়েছে। শুক্রবার বাংলাদেশ সময় রাত ১২ টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নিহতের চাচাতো ভাই তরিকুল ইসলাম। পারভেজ এর মৃত্যর খবর গ্রামের বাড়িতে পৌছানোর পর বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। স্ত্রী, বাবা-মা ও স্বজনদের কান্নায় বাতাশ ভারী হয়ে উঠছে।

পারভেজ মৃত্যু সংবাদ শোনার পর থেকে শত শত লোকজন শনিবার ভোর থেকেই বাড়ীতে ভীর জমাচ্ছে। পরিবারের সদস্যদের শান্তনা দিতে গিয়ে কেউ চোখের পানি ধরে রাখতে পারছেন না। নিহতের পরিবার দ্রুত পারভেজের লাশ দেশে ফিরিয়ে আনতে সরকারের সহযোগিতা চেয়েছেন। নিহত পারভেজ শরীয়তপুর সদর উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের দেলোয়ার সরদার ও পারভীন আক্তার দম্পতির ছেলে।

দক্ষিণ আফ্রিকায় বসবাসরত বাংলাদেশী ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, পারভেজ ২০১৭ সালের ডিসেম্বর মাসে ভাগ্যোন্নয়নের জন্যই দক্ষিণ আফ্রিকা গিয়েছিল। সেখানে কেপটাউন শহরের কালিসা নামক একটি দোকানে সেলসম্যানের কাজ করতো। স্থানীয় কালো সন্ত্রাসীরা কিছুদিন আগে তার কাছে চাঁদা দাবী করে। পারভেজ চাঁদা দিতে রাজী না হওয়ায় শুক্রবার বাংলাদেশী সময় রাত ১২ টায় ৪ জন স্থানীয় কালো আফ্রিকান দোকানে ঢুকেই পারভেজকে গুলি করে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই পারভেজের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ গ্রেফতার হয়নি।

নিহত পারভেজের মামা দক্ষিণ আফ্রিকার কেপটাউন শহরে বসবাসরত সুমন আহমেদ জানান, দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যে কেপটাউন শহর ছিল শান্তির শহর। এখানে কোনো খুন-জখম ছিলনা। কিন্তু গত ২ মার্চ আমার মামা জহিরকে কুপিয়ে হত্যা করে স্থানীয় সন্ত্রাসীরা। এরপর গতকাল শুক্রবার আমার ভাগিনা পারভেজকে গুলি করে হত্যা করা হলো। পুরো আফ্রিকা এখন বাংলাদেশীদের জন্য আতঙ্কের শহর হয়ে উঠেছে।


সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul