adimage

১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯
বিকাল ১০:৪৬, বৃহস্পতিবার

ধানের ন্যায্য দাম না থাকায় ক্ষেতে আগুন

আপডেট  03:01 AM, মে ১৩ ২০১৯   Posted in : ঢাকা    

ধানেরন্যায্যদামনাথাকায়ক্ষেতেআগুন

টাঙ্গাইল, ১৩ মে : টাঙ্গাইলে মালেক শিকদার নামের এক কৃষক ধানের ন্যায্য দাম না থাকায় নিজের ক্ষেতে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়েছেন। পরে স্থানীয় লোকজন এসে আগুন নিভিয়ে ফেলে। এমন প্রতিবাদে বিস্ময় প্রকাশ করেছে তারা।

জানা গেছে, বর্তমানে টাঙ্গাইলে প্রতি মণ ধান বিক্রি হচ্ছে ৫০০ টাকা দরে। অপরদিকে কৃষককে একজন শ্রমিকের মজুরি গুনতে হচ্ছে ৭০০  থেকে ৮০০ টাকা পর্যন্ত। তাও আবার শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছে না। এ অবস্থায় চরম হতাশা আর ক্ষোভের সৃষ্টি হয় টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার পাইকড়া ইউনিয়নের বানকিনা গ্রামের মালেক শিকদারের। আর ক্ষোভ নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে রোববার দুপুরে দিকে নিজের পাকা ধানের ক্ষেতে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন।

এ ব্যপারে মালেক শিকদার জানান, প্রতি মণ ধানের দামের চেয়ে একজন শ্রমিকের মজুরির দাম দ্বিগুণ। ধান আবাদ করে এ বছর যে বিপদে পড়েছি তা আর ভাষায় প্রকাশ করা যাবে না। আবাদে এখন আর কোনো ইচ্ছে নেই। তাই নিজের পাকা ধানক্ষেতেই আগুন ধরিয়ে দিছিলাম।

একই এলাকার মাজেদ মিয়া জানান, গত কয়েকদিন ধরে মালেক শিকদারের মন ভালো যাচ্ছে না। এক ধরনের হতাশা কাজ করছিল তাঁর মধ্যে। কিন্তু তিনি নিজের পাকা ধানের ক্ষেতে আগুন দেবেন— এটা ভাবতে পারিনি।

কালিহাতীর বেশ কয়েকজন কৃষকের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, উত্তরবঙ্গ থেকে আসা একেকজন শ্রমিকের মজুরি ৮০০ থেকে ৯০০ টাকা। তাদের তিনবেলা খাবারও দিতে হচ্ছে। এ অবস্থায় কৃষকরা দিশেহারা হয়ে পড়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে স্থানীয় উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শহীদুল ইসলাম জানান, বিঘাপ্রতি ধান উৎপাদনে বর্তমানে খরচ পড়ছে প্রায় ১৪ হাজার টাকার মতো। হিসাব করলে দেখা যায়, বিঘাপ্রতি দুই থেকে তিন হাজার টাকা কৃষকের লোকসান হচ্ছে। কৃষকদের এ ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করতে হলে কৃষিকাজে বহুমুখী যান্ত্রিকীকরণ এবং ভর্তুকির পরিমাণ বাড়ানো প্রয়োজন।

সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul