adimage

১৭ নভেম্বর ২০১৯
বিকাল ০৬:১৬, রবিবার

ইভিএমে ধীরগতি, তবে ভোটাররা খুশি

আপডেট  09:58 AM, Jun ২৬ ২০১৮   Posted in : জাতীয়    

ইভিএমেধীরগতি,তবেভোটাররাখুশি

গাজীপুর, ২৬ জুন : গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মঙ্গলবার সকাল আটটা থেকে ভোটগ্রহণ চলছে। এ নির্বাচনে ৪২৫টি কেন্দ্রের মধ্যে ৬টিতে ভোটগ্রহণ করা হচ্ছে ইভিএম পদ্ধতিতে। এসব কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে, নতুন এ পদ্ধতির সঙ্গে ভোটাররা পরিচিত না হওয়ায় ভোটগ্রহণে ধীরগতি চলছে। একেকটি ভোট দিতে প্রায় ৪-৫ মিনিট সময় লেগে যাচ্ছে। ফলে এসব কেন্দ্রের প্রতিটি বুথের সামনে ভোটারদের ভিড় লেগে আছে।

ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট নেওয়া রানী বিলাসমনি সরকারি উচ্চ বালক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোট ভোটার ১৯২৭ জন। এখানকার চারটা বুথের ১ নম্বর বুথে ৪৮২ ভোটার রয়েছে। এর মধ্যে সকাল ১০টা পর্যন্ত ৪৬টি ভোট পড়েছে। আর ২ নম্বর বুথে ৪৮২ ভোটারের মধ্যে ৭৪টি বোট পড়েছে প্রথম দুই ঘণ্টায়। ইভিএম মেশিনে ভোট নেওয়া অন্য পাঁচ কেন্দ্রেও ধীরগতিতে ভোটগ্রহণ চলছে।

এ কেন্দ্রে কয়েকজন ভোটারের সঙ্গে কথা বললে তারা বলেন,  সিস্টেমটা ভালো। আঙুলের ছাপ দিলেই ভোটারের ছবি ভেসে ওঠে। তবে ভোট নেওয়ায় একটু দেরি হচ্ছে। অপেক্ষা করতে হলেও সিস্টেমটায় খুশি আমরা।

আর রানী বিলাসমনি সরকারি উচ্চ বালক বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রিজারডিং অফিসার ডা. মো. সেলিমুল্লাহ এ প্রতিবেদককে বলেন, পদ্ধতিটা নতুন বলে ভোটাররা অভ্যস্ত নয়। এজন্য ভোটগ্রহণে সময় লাগছে। ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট দেওয়ার নিয়মাবলী জানিয়ে শহরে মাইকিং করা হয়েছিল। কিন্তু তাতে সাড়া পাওয়া যায়নি। তাই ভোটাররা কেন্দ্রে আসার পর নতুন করে তাদের সিস্টেমটা বুঝিয়ে দিতে হচ্ছে। এ কারণে ভোটগ্রহণে ধীরগতি। তবে সিস্টেমটা ভালো।

২০১৩ সালে গঠিত গাজীপুর সিটি করপোরেশনের আয়তন ৩২৯ বর্গকিলোমিটার। বর্তমানে ভোটার সংখ্যা ১১ লাখ ৩৭ হাজার ৭৩৬। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার পাঁচ লাখ ৬৯ হাজার ৯৩৫ ও নারী ভোটার পাঁচ লাখ ৬৭ হাজার ৮০১ জন। ওয়ার্ড সংখ্যা ৫৭টি। যার মধ্যে ১৯টি সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ড।

গত ৩১ মার্চ গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। সে অনুযায়ী গত ১৫ মে একসঙ্গে দুই সিটি করপোরেশনের নির্বাচন অনুষ্ঠানের কথা ছিল। কিন্তু গাজীপুর সিটি করপোরেশনের সীমানা নিয়ে সাভার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. সুরুজের এক মামলায় আদালত গাজীপুর সিটি নির্বাচনের ওপর স্থগিতাদেশ দেন। পরে নির্বাচন কমিশনের আপিলের পরিপ্রেক্ষিতে সে বাধা কেটে যায়। ইসি ২৬ জুন নতুন করে গাজীপুরে নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করে।

রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় জানায়, এবার ৪২৫টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ চলছে। নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে দায়িত্ব পালন করছেন আট হাজার ৭০৮ জন নির্বাচনী কর্মকর্তা। প্রতিটি কেন্দ্রে একজন করে মোট ৪২৫ জন প্রিসাইডিং অফিসার দায়িত্ব পালন করছেন। -সমকাল


সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul