adimage

১৭ নভেম্বর ২০১৯
বিকাল ০৩:৪২, রবিবার

কাশ্মীর প্রসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সন্ত্রাসবিরোধী অভিজ্ঞতা জানতে চাইবে ভারত

আপডেট  02:25 AM, সেপ্টেম্বর ১৮ ২০১৯   Posted in : আন্তর্জাতিক    

কাশ্মীরপ্রসঙ্গেযুক্তরাষ্ট্রেরসন্ত্রাসবিরোধীঅভিজ্ঞতাজানতেচাইবেভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ১৮ সেপ্টেম্বর : মার্কিন কংগ্রেসে জম্মু ও কাশ্মীর প্রসঙ্গে প্রশ্নের সম্মুখীন হলে যুক্তরাষ্ট্রের সন্ত্রাসবিরোধী অভিজ্ঞতার কথা জানতে চাইবেন বলে জানিয়েছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। ভারত-মার্কিন সম্পর্ক খুব ভালো অবস্থায় রয়েছে দাবি করে জয়শঙ্কর আরও জানিয়েছেন, দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প আগামী রবিবার ‘হাউডি, মোদি’ ইভেন্টে যোগ দেবেন।  

মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব গ্রহণের ১০০ দিন পূর্তি উপলক্ষে মঙ্গলবার সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে জয়শঙ্কর এ তথ্য জানান। এনডিটিভি অনলাইন।

‘হাউডি, মোদি’ ইভেন্টটি পাকিস্তানের উপরে প্রভাব ফেলবে কিনা জানতে চাইলে জয়শঙ্কর বলেন, কেবল পাকিস্তান নয়। সারা বিশ্ব হাউস্টনের ইভেন্ট দেখবে। এবং শিক্ষা নেবে ভারতীয় মার্কিনিরা কী পেল। বহু বার্তাই যাবে। পাকিস্তান কোনটা পড়বে সেটা তারাই জানে।'

সংবাদ সম্মেলনে তিনি জম্মু ও কাশ্মীর প্রসঙ্গে বলেন, জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে মানুষ কী বলছে তা নিয়ে চিন্তার কিছু নেই। ভারতের অবস্থান ১৯৭২ সাল থেকে পরিষ্কার।

উল্লেখ্য, গত ৫ আগস্ট সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করে জম্মু ও কাশ্মীরের ‘স্পেশাল স্ট্যাটাস' তুলে নেয়া হয়। বহু রাজনীতিবিদকে আটক করা হয়। রাজ্যে বহু বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়।

মার্কিন কংগ্রেসের কাছে এ ব্যাপারে বাধার সম্মুখীন হওয়ার সম্ভাবনা আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘যদি আমি কংগ্রেসের কোনও সদস্যের মুখোমুখি হই, আমি জানতে চাইব, আপনারা সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়েছেন। আপনাদের প্রতিক্রিয়া কী? নিস্পৃহ থাকা? আপনারা কী করতেন যদি আপনাদের দেশের সর্বত্র এক আইন সর্বত্র প্রযোজ্য না করা যেত?'

দুই দেশের বাণিজ্য সংক্রান্ত প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, সরকার গত কয়েক মাস ধরে আমেরিকার সঙ্গে আলোচনা করে বাণিজ্য সংক্রান্ত বিষয়টি মিটিয়ে নিতে সচেষ্ট হয়েছে। তিনি বলেন পরিস্থিতি এমনই, যে গ্লাস ৯০ শতাংশ ভর্তি ও ১০ শতাংশ খালি।

তিনি বলেন, ভারত-মার্কিন সম্পর্ক বহু দূর চলে এসেছে। রাজনৈতিক সুস্থিরতা, নিরাপত্তাজনিত সহযোগিতা... এমন কোনও ক্ষেত্র নেই গত ২০ বছরে যা ঊর্ধ্বমুখী হয়নি। হিউস্টনের ইভেন্টের মতো অনুষ্ঠানে দু'পক্ষেরই ভূমিকা দ্বিদলীয়। সম্পর্ক খুব ভালো অবস্থায় রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, যে কোনও সম্পর্কের মতো এখানেও ইস্যু রয়েছে। বাণিজ্যগত সমস্যা অবশ্য স্বাভাবিক। এর থেকে সম্পর্ক কতটা বলিষ্ঠ, তা বোঝা যায়।

উল্লেখ্য, আগামী ২২ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে হিউস্টনে 'হাউডি মোদি' নামের একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী অন্তত ৫০ হাজার ভারতীয় ওই অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। আর সেই অনুষ্ঠানে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যোগ দেবেন বলে জানিয়েছে হোয়াইট হাউস।

সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul