adimage

২১ অগাস্ট ২০১৮
বিকাল ১১:৩৫, মঙ্গলবার

বাবাকে নিয়ে যা বললেন আনোয়ার ইব্রাহীমের মেয়ে

আপডেট  03:03 AM, মে ১২ ২০১৮   Posted in : আন্তর্জাতিক    

বাবাকেনিয়েযাবললেনআনোয়ারইব্রাহীমেরমেয়ে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ১২ মে : মালয়েশিয়ার কারাদণ্ডপ্রাপ্ত রাজনৈতিক নেতা আনোয়ার ইব্রাহিম অতি শিগগিরই মুক্তি পাবেন বলে ধারণা করছেন তার মেয়ে নুরুল ইজাহ আনোয়ার। তবে তিনি এ-ও বলেছেন যে, সাবেক একনায়ককে বিশ্বাস করা খুব একটা সহজ নয়।


এবিসি নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে নুরুল ইজাহ আনোয়ার বলেন, তিনি শিগগিরই মুক্তি পাবেন, কারণ নির্বাচনের এ ফলের পেছনে, নতুন এই পদক্ষেপের পেছনে তিনি ছিলেন অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ শক্তি। কারাগারে পিতার সাথে সাক্ষাৎ করে আসার পর সাক্ষাৎকার দেন দেশটির পার্লামেন্ট সদস্য নুরুল ইজাহ আনোয়ার।


সদ্য শপথ নেয়া প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ জানিয়েছেন, দেশটির সুলতান আনোয়ার ইব্রাহিমকে মুক্তি দেয়ার ব্যাপারে সম্মতি দিয়েছেন। ফলে ধারণা করা যাচ্ছে, পূর্ণ শাস্তি ভোগ করার আগেই তিনি মুক্তি পেতে যাচ্ছেন। এটি বাস্তবায়ন হলে শিগগিরই তিনি পার্লামেন্টে প্রবেশ করতে পারবেন এবং মাহাথিরের হাত থেকে সরকারের দায়িত্ব নিতে পারবেন।


আনোয়ার ইব্রাহিমকে কথিত সমকামিতার অভিযোগে ইতোমধ্যে দুইবার কারাদণ্ড দেয়া হয়। প্রথম দফায় মাহাথির ক্ষমতায় থাকাবস্থাতেই তিনি শাস্তি পান। দ্বিতীয় দফায় যখন তিনি কারাদণ্ড পান, তখন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন নাজিব রাজাক। যদিও আনোয়ারের সমর্থকেরা অভিযোগগুলো রাজনৈতিক কারণে করা হয়েছে বলে অভিহিত করেন।
নুরুল ইজাহ আনোয়ার বলেন, ডা: মাহাথির মোহাম্মদ আজ (গতকাল) এক বক্তব্যে বলেন, সুলতান এ বিষয়ে সম্মতি দিয়েছেন। আমরা চাই, তার বিরুদ্ধে আনা অন্য রাজনৈতিক অভিযোগগুলোও বাতিল করা হবে। সেই সাথে অন্যায়ভাবে আটক থাকা অন্য রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দেরও আমরা মুক্তি চাই। তাদের সম্মতি এই কথাই প্রমাণ করে যে, তিনি ছিলেন একজন নির্দোষ ব্যক্তি; কিন্তু তিনি এ অভিযোগে মোট ১১ বছর কারাদণ্ড ভোগ করেন।

আনোয়ার ইব্রাহিমের কাছে ক্ষমতা হস্তগত করার ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি বিশ্বাস করি এই জোট টিকে আছে কেবল বিশ্বাসের ওপর। যদিও সাবেক একনায়ককে বিশ্বাস করা সহজ নয়, কিন্তু সংস্কারের বিষয়ে তিনি প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। আর এখানে সেগুলো নিশ্চিত করার জন্য তো রয়েছিই। তিনি বলেন, কে প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন, আমি এ ব্যাপারে উদ্বিগ্ন নই। আমি সব সময়ই বলে এসেছি, আমাদের একজন ভালো প্রধানমন্ত্রী দরকার।


পাচার হওয়া অর্থ ফেরত আনব : মাহাথির

জালিয়াতির মাধ্যমে বেহাত হওয়া মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রীয় বিনিয়োগ তহবিলের (ওয়ানএমডিবি) বেশির ভাগ অর্থ ফেরত আনা সম্ভব হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন দেশটির নতুন প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ। মালয়েশিয়ার অর্থনীতির উন্নয়নের জন্য ২০০৯ সালে ওয়ানএমডিবি তহবিল গঠন করা হয়েছিল। ওই তহবিলে তিন শ’ কোটি ডলারের বেশি অর্থ ছিল, যার মাধ্যমে রাজধানী কুয়ালালামপুরকে বিশ্ব-অর্থনীতির কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত করার পাশাপাশি কৌশলগত বিনিয়োগের মাধ্যমে দেশের অর্থনীতি গতিশীল করার পরিকল্পনা করা হয়েছিল।

ওই তহবিলের অর্থ আত্মসাতের মাধ্যমে মালয়েশীয়দের প্রতারিত করা হচ্ছে। ২০১৬ সালে যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃপক্ষ তাদের কাছে এ সংক্রান্ত তথ্যপ্রমাণ থাকার কথা জানিয়ে অন্তত এক শ’ কোটি ডলারের সম্পদ জব্দ করার উদ্যোগ নেয়।

যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল কোর্টে এ সংক্রান্ত একটি মামলাও হয়। মার্কিন বিচার বিভাগের দায়ের করা ওই মামলার কাগজপত্রে মালয়েশিয়ার সদ্য সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের নাম উল্লেখ না করে ‘মালয়েশিয়া অফিসিয়াল ওয়ান’ বলা হয়। এরই মধ্যে এ অর্থ কেলেঙ্কারির ঘটনায় মালয়েশিয়াও নাজিবের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়ে গেছে। দীর্ঘ ১৫ বছরের বিরতির পর ৯২ বছর বয়সে আবারো দেশের হাল ধরা মাহাথির বলেন, ‘ওয়ানএমডিবি তহবিলের বেশির ভাগ অর্থ আমরা ফেরত আনতে সক্ষম হব বলেই আমার বিশ্বাস।’


সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul